Connect with us

Lifestyles

পূজার সাজ

Bd-onlinemagazine magazine: ঢাকা জহিরুল ইসলাম।

কদিন বাদেই শারদীয় দুর্গা পূজা। চলছে ধুম কেনাকাটা। প্রতি বছরের মতো সাজসজ্জায় কম হচ্ছে কোভিড১৯ জন্য, তাই বলে থেমে থাকে নাই আয়োজন, এবারও যোগ হয়েছে কিছু নতুনত্ব। উৎসবের দিনগুলোতে স্পেশাল সাজের দরকার হয়, আর তা যদি হয় পূজার সময় তাহলে তো কথাই নেই। এবার পূজার সাজ তুলে ধরা হল এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজার চলাফেরা করবে সবাই।

পোশাকের ক্ষেত্রে প্রাধান্য দিন লাল, সাদা, অফহোয়াইট, মেরুন আর গেরুয়া বা কমলা, ফিরোজা, ক্রিম, টিয়া, নীল, এ্যাশ, সোনালি হলুদ ও মেজেন্টা রং। ভালো হয় প্রথমদিন সাদা পড়লে তার পরদিন লাল, এরপর হলুদ এভাবে পোশাক বেছে নিলে।

সাজটাও হবে সেভাবেই, সাদা কিংবা যেকোনো হালকা রঙের পোশাক বেছে নিন ষষ্ঠীর দিন সঙ্গে হালকা সাজ। ফাউন্ডেশন-ফেসপাউডার, হালকা লিপিস্টিক আর চোখে কাজল দিয়েই সাজ শেষ করুন।

সপ্তমীর দিন থেকে নবমী পর্যন্ত সকালে পূজার অঞ্জলি দিতে যাওয়ার সময় সুতি শাড়ি বেছে নিন। তবে বিকেল বা সন্ধ্যার দিকে একটু ভারী সাজতে পারেন। দশমীর দিন সাজা চাই একেবারে মনেরমতো করে। এদিন সিঁদুর খেলা হয়। তাই লাল বা গাঢ় রঙের পোশাক বেছে নেওয়াই ভালো। দশমীর দিন বেছে নিন তাঁত, জামদানি বা ঐতিহ্যবাহী গরদের শাড়িটি।

এই দিন, দিনের বেলায় মুখে, গলায় ও ঘাড়ে ফাউন্ডেশন হালকা করে লাগিয়ে নিন। এর ওপরে আলতো করে পাউডার এবং সামান্য বেজ কম্প্যাক্ট বুলিয়ে নিন। চোখের পুরোটা পাতায় আইশ্যাডো লাগান। চোখের ওপরের পাতায় আইলাইনার দিয়ে লাইন টেনে নিন। দুই গালে ব্লাসন বুলিয়ে দিন। লিপস্টিকের বদলে লাগান লিপগ্লস। আগেই চুল সেট করে নিন। খোপা করে ফুল দিতে পারেন অথবা ব্লো ডাই করে খুলে রাখুন।

রাতের সাজের সময় কোনো বাধা নেই। তবে সাজুন সময় নিয়ে, যত্ন করে।
প্রথমে মুখ পরিষ্কার করে টোনিং করুন। ওয়াটার বেজড্ ফাউন্ডেশন মুখে, গলায় ও ঘাড়ে লাগিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। এর ওপরে কম্প্যাক্ট পাউডার দিন।

শাড়ির সঙ্গে মিলিয়ে চোখে গাঢ় রঙের শ্যাডো লাগিয়ে নিন। চোখের নিচে টেনে কাজল দিন। চোখের ওপরের পাতায় আইলাইনার দিয়ে মোটা করে লাইন টেনে নিন। দুই বার করে মাশকারা লাগান। ঠোঁট এঁকে গাঢ় রঙের লিপস্টিক লাগিয়ে নিন। শাড়ি পরলে মানানসই টিপ পরুন সঙ্গে হাতভর্তী কাচের চুড়ি। পূজা দেখার সময় অনেক হাঁটতে হয় তাই আরামদায়ক স্যান্ডেল পরুন। তাই লাল বা গাঢ় রঙের পোশাক বেছে নেওয়াই ভালো। দশমীর দিন বেছে নিন তাঁত, জামদানি বা ঐতিহ্যবাহী গরদের শাড়িটি।

এই দিন, দিনের বেলায় মুখে, গলায় ও ঘাড়ে ফাউন্ডেশন হালকা করে লাগিয়ে নিন। এর ওপরে আলতো করে পাউডার এবং সামান্য বেজ কম্প্যাক্ট বুলিয়ে নিন। চোখের পুরোটা পাতায় আইশ্যাডো লাগান। চোখের ওপরের পাতায় আইলাইনার দিয়ে লাইন টেনে নিন। দুই গালে ব্লাসন বুলিয়ে দিন। লিপস্টিকের বদলে লাগান লিপগ্লস। আগেই চুল সেট করে নিন। খোপা করে ফুল দিতে পারেন অথবা ব্লো ডাই করে খুলে রাখুন।

রাতের সাজের সময় কোনো বাধা নেই। তবে সাজুন সময় নিয়ে, যত্ন করে।
প্রথমে মুখ পরিষ্কার করে টোনিং করুন। ওয়াটার বেজড্ ফাউন্ডেশন মুখে, গলায় ও ঘাড়ে লাগিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। এর ওপরে কম্প্যাক্ট পাউডার দিন।

শাড়ির সঙ্গে মিলিয়ে চোখে গাঢ় রঙের শ্যাডো লাগিয়ে নিন। চোখের নিচে টেনে কাজল দিন। চোখের ওপরের পাতায় আইলাইনার দিয়ে মোটা করে লাইন টেনে নিন। দুই বার করে মাশকারা লাগান। ঠোঁট এঁকে গাঢ় রঙের লিপস্টিক লাগিয়ে নিন। শাড়ি পরলে মানানসই টিপ পরুন সঙ্গে হাতভর্তী কাচের চুড়ি। পূজা দেখার সময় অনেক হাঁটতে হয় তাই আরামদায়ক স্যান্ডেল পরুন।

দশমীতে খোঁপায় তাজা ফুল দিতে ভুলবেন না। পূজার দিনগুলোতে সুন্দর থাকুন, সবাইকে শারদীয় শুভেচ্ছা।

মডেল.’. উর্মি বিশ্বাস।

Continue Reading
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশক ও সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) জহিরুল ইসলাম বিডি-অনলাইনম্যাগাজিন ডটকম মোবাইল নাম্বার ০১৭৪৬৫৭৯৭৮৫