ছবি সংগৃহিত

জহিরুল ইসলাম প্রতিবেদক, বিডি-অনলাইন ম্যাগাজিন ডটকম, Published 17 Feb,2024,5,20am

হার না মানা কয়েকজন নারীর রচনা অপরাজিতা গল্প, এই বইটিতে হেরে না যাওয়া নারীদের গল্পের মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে।

অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে ১৬ ই ফেব্রুয়ারি শুক্রবার ‘অপরাজিতা গল্প’ বইটি। এটি ইতোমধ্যে সাড়া ফেলেছে পাঠকদের মাঝে। অনেক নারীর অভিজ্ঞতা গল্পের তুলে ধরেছেন তারা। বইটিতে নানা চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনাও আলোকপাত করেছেন অপরাজিতা নারীরা।

বইটি প্রকাশক জোবায়ের আহমেদ,প্রচ্ছদ ও মুদ্রণেঃ এম পারভেজ পাটওয়ালী। নতুন সকাল প্রকাশনীর উদ্যোগে ছাপানো হয়েছে। বইটি পাওয়া যাচ্ছে এবারের একুশের বই মেলায় দ্বৈতা প্রকাশ স্টল নং ৭২৭, এবং ভিন্ন মাত্রা প্রকাশনী স্টল নং ৪০, এ পাওয়া যাবে। বইটি সম্পাদনা করেছেন শাহিন আহমেদ।
বইটি নিয়ে সম্পাদক শাহিন আহমেদ মন্তব্য করে বলেন, প্রুফ রিডিং বা ভুল সংশোধনের জন্য অপরাজিতার গল্প বইটি পড়ে আমার যে উপলব্ধি হলো, আমরা আমাদের অজান্তেই এত চমৎকার একটি প্রজেক্ট এর কাজ করছি। একেকজনের লেখার ধরন যোগ্যতা স্বাদ একেক রকম। একেকটা গল্প এক একটি সমস্যাকে ইঙ্গিত করেছে। কোন কোন গল্প চোখে জল আনতে আবার কারো কারো গল্প হৃদয়কে ছুঁয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে। ভিন্ন ভিন্ন মানুষের ভিন্ন ভিন্ন চিন্তায় গল্পগুলো হয়ে উঠেছে চমকপ্রদ। কবিতাগুলো হৃদয়গ্রাহী। এক কথায় অপরাজিতার গল্প একটি শ্রেষ্ঠ বই হবে। আমি খুব উচ্ছ্বাসিত আমার কাছে অত্যন্ত আনন্দ লাগছে। আমার কাছে মনে হলো যে সবচেয়ে সফল প্রজেক্ট এবং মানুষের সাথে অপরাজিতার কানেকশন তৈরি করবে এই অপরাজিতার গল্প বইটি। আরো অনেক কিছু বলার মতো পেয়েছি… আশা করি আমাদের এই বইটি প্রত্যেকে সংগ্রহ করবেন এবং প্রিয়জনকে উপহার দিবেন। যিনি কিনবেন তিনি ষোল আনা উসুল পাবেন বইটি পড়ে। আমি নিজেও অপেক্ষায় থাকলাম…..

প্রকাশক জোবায়ের আহমেদ বলেন, বর্তমান সময় আধুনিক ডিজিটাল সময় অতিবাহিত করছে এই সময়ে নারী পুরুষ সবাই চায় নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে। একসময় নারীদের অবহেলা করা হতো কিন্তু বর্তমান সময়ে নারীরা তাদের ভালো কর্ম দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য সংগ্রাম করছে তেমনি কয়েকজন সংগ্রামী নারীর রচনায় এবারের বইটি। এই বইটি সম্পাদনা করেছেন বিশিষ্ট মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ও সংগঠক জনাব শাহিন আহমেদ। আমি বিশ্বাস করি এই বইটি এবারের বইমেলায় আলোড়ন সৃষ্টি করবে যে সকল মানুষ নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চায় তারা অবশ্যই এই বইটি পড়বেন, এই বইটি অনেক নারীর গল্প প্রীয়জনকে উপহার দিবেন এবং সংরক্ষণ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *